comment 0

এটা প্রথম বার ছিল, শেষ বার নয়…….

আমাদের ডিপার্টমেন্ট (ইউনিভার্সিটির) থেকে প্রতি সেমিস্টারে নতুন ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রামের আয়োজন করা হয়। ওই প্রোগ্রামের একটা সেগমেন্টে সাধারণত একজন বর্তমান এবং সাবেক ছাত্র-ছাত্রীদের আমন্ত্রণ জানানো হয় তাদের অভিজ্ঞতা শেয়ার করার জন্য।

সময়টা বছর দুয়েক আগে হবে। বর্তমান ছাত্র হিসেবে এরকম একটা প্রোগ্রামে আমন্ত্রণ পেলাম আমার অভিজ্ঞতা শেয়ার করার জন্য। ব্যাপারটা সম্মানজনক ছিল। ডিপার্টমেন্টের অন্যতম সফল দুই বড় ভাই এর সাথে স্টেজ শেয়ার করার সুযোগ হয়েছিল।

আমি প্রস্তুতি নিয়ে গিয়েছিলাম মূলত কমিউনিটি এনগেজমেন্ট নিয়ে কথা বলার জন্য। আমাদের শ্রদ্ধেয় হেড স্যার ঘোষণা করলেন, আমি কথা বলবো এই ডিপার্টমেন্টের ছাত্র হিসেবে আমার অভিজ্ঞতা নিয়ে! এমনিতেই নার্ভাস ছিলাম। তারমধ্যে ঠিক ওই সময়টাতে ইউনিভার্সিটি এবং আমার পারিবারিক কিছু কারণে খুবই হতাশার মধ্যে ছিলাম। আমার মাথায় ইউনিভার্সিটি নিয়ে কোন পজেটিভ কথা ছিল না। কিন্তু হতাশার কথা গুলো তো আর ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রামে বলা যাবে না!

তো আমি স্টেজে উঠলাম। বানিয়ে বানিয়ে ডিপার্টমেন্টের ভাল দিক গুলো বলা শুরু করলাম। বানিয়ে বানিয়ে বললেও কথা গুলো মিথ্যা ছিল না। একটা সময় পর আমার মাথা খালি হয়ে গেল। উপসংহার টানতে পারছিলাম না। আমি থেমে গেলাম। আমার মাথা কাজ করছিল না। ব্যাপারটা প্যানিক এটাকের মত ছিল। আমার মনে হচ্ছিল স্টেজ থেকে অদৃশ্য হয়ে যেতে পারলে বাঁচতাম…..

একটু সময় নিয়ে তারপর দুঃখ প্রকাশ করে শেষ করলাম। ওইদিন ব্যাপারটা নিয়ে অনেক খারাপ লাগছিল। নিজেকে অপদার্থ মনে হচ্ছিল। বিশেষ করে ওখানে ইউনিভার্সিটির উচ্চপদস্থ ব্যক্তিরা ছিলেন। মনে হচ্ছিল নিজের ডিপার্টমেন্টকে তাদের সামনে ছোট করে ফেলেছি।

এক বড় ভাই সাহস দিয়ে বললেন, এটা প্রথম বার ছিল, শেষ বার নয়।

আজ থেকে তিন দিন আগে আবার ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রামে কথা বলতে গেলাম। না, দ্বিতীয় বারের মত না। ৫ম বার।

না, আর কোন বারই আটকে যাই নি। নির্ঘুম চোখে, মাথা ব্যাথা নিয়ে, বিনা প্রস্তুতিও আর আটকাই না এখন। আলহামদুলিল্লাহ, প্রথম বারই শেষ ছিল না।

তবে এবারই বর্তমান ছাত্র হিসেবে হয়ত শেষ বার। এই সেমিস্টার শেষে ৩ বছর ৮ মাসে গ্র্যাজুয়েশন শেষ হবে ইনশাআল্লাহ। এবার কথা বলা শেষে যখন বসে ছিলাম, আবেগ পেয়ে বসেছিল। নাহ, আমি আসলে আমার ইউনিভার্সিটিকে ভালবাসি, ভালবাসি আমার ডিপার্টমেন্টকে।

ছবিটা গত ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রামের। স্বভাবতই আমার ব্যাক্তিগত ছবির কালেকশন ‘নাই’ এর কোটায়।

Spin up your first SSD cloud server on DigitalOcean with $10 free credit!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *